অপেক্ষা করতে হবে আর কিছুক্ষন

এ বছরের ব্যালন ডি’অর পুরস্কার কার হাতে উঠছে- তা জানার জন্য আর মাত্র কয়েক ঘণ্টা অপেক্ষা করতে হবে ফুটবলপ্রেমীদের। ফ্রান্স ফুটবল সাময়িকীর দেওয়া মর্যাদাপূর্ণ এই পুরস্কারের দৌঁড়ে এ বছর এগিয়ে আছেন আর্জেন্টিনার সুপারস্টার লিওনেল মেসি আর পোলিশ তারকা রবার্ট লেভানডস্কি। গোটা বিশ্বের ফুটবলপ্রেমীদের মনে একটাই প্রশ্ন- এবার কি মেসির ৭ম বার নাকি লেভানডস্কির প্রথমবার?

ভোটাভুটি শেষ। নিশ্চিত হয়ে গেছে কে হবেন বিজয়ী। ট্রফি নিয়ে শিরোপাজয়ী ফটোসেশনও করে ফেলেছেন। কিন্তু সবই হয়েছে সংগোপনে, নিভৃতে। কেউ জানেনি।

জানা যাবে আজ। জানা যাবে, কার হাতে উঠছে এবারের ব্যালন ডি’অর ট্রফি। লিওনেল মেসি, রবার্ট লেভানডফস্কি, কিলিয়ান এমবাপ্পে, না করিম বেনজেমা, ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো বা জর্জিনিও—সব প্রশ্নের অবসান ঘটবে আজই। জানা যাবে ফ্রান্স ফুটবল ম্যাগাজিনের জরিপে গত বছর বিশ্বের সেরা খেলোয়াড় কে ছিলেন।বিজ্ঞাপন

ক্যারিয়ারে এ পর্যন্ত ছয়টি ব্যালন ডি’অর জিতেছেন লিওনেল মেসি

একনজরে দেখে নিন ব্যালন ডি’অর–সংক্রান্ত সব খুঁটিনাটি তথ্য


অনুষ্ঠান শুরু কখন হবে
বাংলাদেশ সময় রাত দেড়টা


কোথায় হবে
থিয়েখ্‌ দু শাতেলে, প্যারিস


কততম আসর
৬৫


দিচ্ছে কারা
ফ্রান্স ফুটবল ম্যাগাজিন


ভোট দেবেন যাঁরা
১৮০ নির্বাচিত সাংবাদিকের ভোটে ৩০ শীর্ষ ফুটবলারের প্রাথমিক তালিকা থেকে ৫০ জন বিশেষজ্ঞ সাংবাদিক শীর্ষ পাঁচ খেলোয়াড় নির্বাচন করবেন। প্রত্যেক সাংবাদিক পাঁচজন খেলোয়াড়কে ক্রমানুসারে ভোট দিতে পারবেন। যে খেলোয়াড়কে প্রথমে রাখবেন, সে খেলোয়াড় পাবেন ছয় পয়েন্ট। এভাবে ক্রমানুসারে ওই সাংবাদিকের তালিকায় দ্বিতীয়, তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম ফুটবলার পাবেন যথাক্রমে চার, তিন, দুই ও এক পয়েন্ট। এভাবে ৫০ জন বিশেষজ্ঞ সাংবাদিকের মোট ভোট থেকে হিসাব করা হবে কোন খেলোয়াড় মোট কত পয়েন্ট পেলেন। সে পয়েন্টের দৌড়ে যিনি প্রথম হবেন, তাঁর হাতেই উঠবে ব্যালন ডি’অর

দৌড়ে আছেন লেভানডফস্কিও

ছেলেদের ব্যালন ডি’অরের জন্য মনোনীত যাঁরা


লিওনেল মেসি (পিএসজি/বার্সেলোনা, আর্জেন্টিনা)
রবার্ট লেভানডফস্কি (বায়ার্ন মিউনিখ, পোল্যান্ড)
করিম বেনজেমা (রিয়াল মাদ্রিদ, ফ্রান্স)
কিলিয়ান এমবাপ্পে (পিএসজি, ফ্রান্স)
ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো (ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড/জুভেন্টাস, পর্তুগাল)
মোহাম্মদ সালাহ (লিভারপুল, মিসর)
নিকোলো বারেল্লা (ইন্টার মিলান, ইতালি)
জর্জিনিও (চেলসি, ইতালি)
নেইমার (পিএসজি, ব্রাজিল)
আর্লিং হরলান্ড (বরুসিয়া ডর্টমুন্ড, নরওয়ে)
লুইস সুয়ারেজ (আতলেতিকো মাদ্রিদ, উরুগুয়ে)
লুকা মদরিচ (রিয়াল মাদ্রিদ, ক্রোয়েশিয়া)
কেভিন ডি ব্রুইনা (ম্যানচেস্টার সিটি, বেলজিয়াম)
এনগোলো কান্তে (চেলসি, ফ্রান্স)
রুবেন দিয়াস (ম্যানচেস্টার সিটি, পর্তুগাল)
পেদ্রি (বার্সেলোনা, স্পেন)
লাওতারো মার্তিনেজ (ইন্টার মিলান, আর্জেন্টিনা)
রাহিম স্টার্লিং (ম্যানচেস্টার সিটি, ইংল্যান্ড)
রোমেলু লুকাকু (চেলসি/ইন্টার মিলান, বেলজিয়াম)
মেসন মাউন্ট (চেলসি, ইংল্যান্ড)
লিওনার্দো বোনুচ্চি (জুভেন্টাস, ইতালি)
ব্রুনো ফার্নান্দেস (ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, পর্তুগাল)
সেজার আজপিলিকেতা (চেলসি, স্পেন)
জিয়ানলুইজি দোন্নারুম্মা (পিএসজি/এসি মিলান, ইতালি)
জর্জো কিয়েল্লিনি (জুভেন্টাস, ইতালি)
ফিল ফোডেন (ম্যানচেস্টার সিটি, ইংল্যান্ড)
সিমোন কায়ের (এসি মিলান, ডেনমার্ক)
রিয়াদ মাহরেজ (ম্যানচেস্টার সিটি, আলজেরিয়া)
হ্যারি কেইন (টটেনহাম হটস্পার, ইংল্যান্ড)
জেরার্ড মোরেনো (ভিয়ারিয়াল, স্পেন)

সেরা তরুণ খেলোয়াড় হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে আছেন পেদ্রি

কোপা ট্রফির জন্য মনোনীত যাঁরা (সেরা তরুণ খেলোয়াড়)

পেদ্রি (বার্সেলোনা, স্পেন)
জুড বেলিংহ্যাম (বরুসিয়া ডর্টমুন্ড, ইংল্যান্ড)
জামাল মুসিয়ালা (বায়ার্ন মিউনিখ, জার্মানি)
বুকায়ো সাকা (আর্সেনাল, ইংল্যান্ড)
জেরেমি দোকু (রেনেঁ, বেলজিয়াম)
মেসন গ্রিনউড (ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, ইংল্যান্ড)
রায়ান গ্রাভেনবার্চ (আয়াক্স, নেদারল্যান্ডস)
নুনো মেন্দেস (স্পোর্তিং লিসবন/পিএসজি, পর্তুগাল)
জিওভান্নি রেইনা (বরুসিয়া ডর্টমুন্ড, যুক্তরাষ্ট্র)
ফ্লোরিয়ান উইর্তজ (বায়ার লেভারকুসেন, জার্মানি)

সেরা গোলকিপারের তালিকায় আছেন এমিলিয়ানো মার্তিনেজ

ইয়াশিন ট্রফির জন্য মনোনীত যাঁরা (সেরা গোলকিপার)


এমিলিয়ানো মার্তিনেজ (অ্যাস্টন ভিলা, আর্জেন্টিনা)
জিয়ানলুইজি দোন্নারুম্মা (পিএসজি/এসি মিলান, ইতালি)
এদুয়ার্দ মেন্দি (চেলসি, সেনেগাল)
সামির হানদানোভিচ (ইন্টার মিলান, স্লোভেনিয়া)
থিবো কোর্তোয়া (রিয়াল মাদ্রিদ, বেলজিয়াম)
ম্যানুয়েল নয়্যার (বায়ার্ন মিউনিখ, জার্মানি)
এদেরসন (ম্যানচেস্টার সিটি, ব্রাজিল)
কেয়লর নাভাস (পিএসজি, কোস্টারিকা)
ক্যাসপার স্মাইকেল (লেস্টার সিটি, ডেনমার্ক)
ইয়ান ওবলাক (আতলেতিকো মাদ্রিদ, স্লোভেনিয়া)

এ জাতীয় আরও সংবাদ

Back to top button