আমাদের বিএনপিতে কোন অনৈক্য নেই : এড.তৈমূর আলম

বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও জেলা বিএনপির আহবায়ক তৈমুর আলম খন্দকার বলেছেন, বিএনপিতে কোন অনৈক্য নেই। আমরা সবাই এক সাথে আছি। একজন প্রার্থী এটিএম কামাল নিজেই এখানে আছে। আমরা সবাই ঐক্যমতের ভিত্তিতে নির্বাচন করছি। এখন পর্যন্ত বিএনপির একমাত্র আমিই মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছি। মহানগরের নেতৃবৃন্দ যারা আছেন এবং উপজেলার সেক্রেটারি বন্দর থানার প্রেসিডেন্ট সবাই আমার সাথে আছে।

বুধবার (১৫ ডিসেম্বর) নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মেয়র পদে মনোয়ন পত্র জমার দেয়ার পর গণমাধ্যমে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, বিএনপি অনেক বড় একটা দল। জনগণের আশা আকাঙ্খার প্রতীক বিএনপি। এই বিএনপিকে অনেক কৌশল অবলম্বন করে চলতে হয়েছে। গত জাতীয় নির্বাচনে আপনারা দেখেছেন আমাদের অনেক প্রার্থীকে জেলখানায় থাকতে হয়েছে। অনেক প্রার্থীর বাড়ি-ঘরে লুটপাট করা হয়েছে, অনেককে পেটানো হয়েছে। যাদের পেটানো হয়েছে তাদের মামলা পুলিশ নেয়নি। তাদের গায়েবি মোকদ্দমা দিয়ে বাড়ি-ঘর ছাড়া করা হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে বিএনপিকে চলতে হয়েছে। কিন্তু বিএনপি কখনও কম্প্রমাইজ করেনি। আন্দোলন সংগ্রামের স্বার্থে বিএনপি কাজ করে যাচ্ছে। রাজনৈতিক দল পৃথিবীর সব জায়গায় কৌশল অবলম্বন করে। আমরা আমাদের অবস্থানে এগিয়ে যাচ্ছি। সময়মত আপনারা বুঝবেন আমাদের অবস্থানটা কী। দল জনগনের পাশে আছে এবং থাকবে।

তিনি আরও বলেন, নারায়ণগঞ্জ শহর হবে বায়ু দূষন ও জলাবদ্ধতা মুক্ত শহর। এ শহরে মানুষ নিরাপদে চলাচল করবে, রাস্তা হবে পরিষ্কার। সকল নাগরিক সুবিধা নগরবাসী পাবে। আমরা ২০০২ সালে যে প্রস্তাব দিয়েছিলাম সে প্রস্তাবের ভিত্তিতে একটি সুন্দর সিটি করপোরেশন হিসেবে নারায়ণগঞ্জকে তৈরি করতে চাই।

এসময় উপস্থিত ছিলেন মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এটিএম কামাল, বন্দর উপজেলা বিএনপির সভাপতি আতাউর রহমান মুকুল, বিএনপি নেতা হাজী নুরুদ্দিন, বিএনপির সিনিয়র নেতা জামাল উদ্দিন কালু, মহানগর বিএনপির যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক আব্দুর সবুর খাট সেন্টু, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু আল ইউসুফ খান টিপু, আব্দুল হামিদ খান ভাসানী, মহানগর যুবদলের সাবেক সভাপতি মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদসহ বিএনপির অঙ্গসংগঠনের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী।

এ জাতীয় আরও সংবাদ

Back to top button