আল কুরআন সম্পর্কিত ৫০ টি অসাধারণ প্রশ্ন ও উত্তর

১) প্রশ্নঃ পবিত্র কুরআনুল কারীমে কতটি
সূরা আছে?
⭕উত্তরঃ ১১৪টি।
২) প্রশ্নঃ পবিত্র কুরআনের প্রথম সূরার
নাম কি?
⭕উত্তরঃ সূরা ফাতিহা।
৩) প্রশ্নঃ পবিত্র কুরআনের সবচেয়ে বড়
সূরার নাম কি?
⭕উত্তরঃ সূরা বাকারা।
৪) প্রশ্নঃ পবিত্র কুরআনের সবচেয়ে ছোট সূরার নাম কি?
⭕উত্তরঃ সূরা কাওসার।
৫) প্রশ্নঃ পবিত্র কুরআনের মধ্যে সবচেয়ে
বড় আয়াত কোনটি কোন সূরায়?
⭕উত্তরঃ সূরা বাক্বারার ২৮২
নং আয়াত।
৬) প্রশ্নঃ পবিত্র কুরআনের
মধ্যে সবচেয়ে ফযীলতপূর্ণ আয়াত
কোনটি?
⭕উত্তরঃ আয়াতুল কুরসী।
(সূরা বাক্বারা ২৫৫ নং আয়াত।
৭) প্রশ্নঃ ফরয নামাযান্তে কোন
আয়াতটি পাঠ করলে, মৃত্যু
ছাড়া জান্নাতে যেতে কোন
বাধা থাকে না?
⭕উত্তরঃ আয়াতুল কুরসী।
৮) প্রশ্নঃ পবিত্র কুরআনের কোন্
সূরাটি পাঠ করলে কবরের আযাব
থেকে রক্ষা পাওয়া যাবে?
⭕উত্তরঃ সূরা মুলক। (৬৭নং সূরা)
৯) প্রশ্নঃ পবিত্র কুরআনের কোন
সূরাটি কুরআনের এক তৃতীয়াংশের
সমান?
⭕উত্তরঃ সূরা ইখলাস। (112 নং সূরা)
১০) প্রশ্নঃ পবিত্র কুরআনের কোন সূরার
প্রতি ভালবাসা মানুষকে জান্নাতে
নিয়ে যাবে?
⭕উত্তরঃ সূরা ইখলাস।


১১) প্রশ্নঃ কোন সূরাটি পবিত্র
কুরআনের চতুর্থাংশের সমপরিমাণ?
⭕উত্তরঃ সূরা কাফেরুন। (109 নং সূরা)
১২)প্রশ্নঃ পবিত্র কুরআনের কোন
সূরাটি জুমআর দিন বিশেষভাবে পাঠ
করা মুস্তাহাব?
⭕উত্তরঃ সূরা কাহাফ (18 নং সূরা))
১৩) প্রশ্নঃ পবিত্র কুরআনের কোন সূরার
প্রথমাংশ তেলাওয়াতকারীকে দাজ্জাল
এর ফেতনা থেকে রক্ষা করবে?
⭕উত্তরঃ সূরা কাহাফের প্রথম
দশটি আয়াত। (18 নং সূরা))
১৪) প্রশ্নঃ পবিত্র কুরআনের কোন
দু’টি সূরা জুমআর দিন ফজরের
নামাযে তেলাওয়াত করা সুন্নাত?
⭕উত্তরঃ সূরা সাজদা ও দাহার।
১৫) প্রশ্নঃ পবিত্র কুরআনের কোন
দু’টি সূরা জুমআর নামাযে তেলাওয়াত
করা সুন্নাত?
⭕উত্তরঃ সূরা আ’লা ও গাশিয়া।
১৬) প্রশ্নঃ পবিত্র কুরআন কত বছরে
নাযিল হয়?
⭕উত্তরঃ তেইশ বছরে।
১৭) প্রশ্নঃ ‘মুহাম্মাদ’ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি
ওয়া সাল্লাম) এর নাম পবিত্র কুরআনে কত
স্থানে উল্লেখ হয়েছে?
⭕উত্তরঃ চার স্থানে। (১) সূরা আল ইমরান
আয়াত- ১৪৪। (২) সূরা আহযাব আয়াত
নং ৪০। (৩) সূরা মুহাম্মাদ আয়াত নং ২।(৪) সূরা ফাতিহা আয়াত নং ২৯।
১৮) প্রশ্নঃ পবিত্র কুরআনের সর্বপ্রথম
কোন আয়াত নাযিল হয়?
⭕উত্তরঃ সূরা আলাকের প্রথম
পাঁচটি আয়াত। ইক্বরা বিসমি রাব্বিকাল্লাযী…..
১৯) প্রশ্নঃ পবিত্র কুরআনের কোন
আয়াতটি সর্বশেষ নাযিল হয়?
⭕উত্তরঃ আল্লাহ্ বলেন, ( ﻭَﺍﺗَّﻘُﻮﺍ ﻳَﻮْﻣًﺎ ﺗُﺮْﺟَﻌُﻮﻥَ
ﻓِﻴﻪِ ﺇِﻟَﻰ ﺍﻟﻠَّﻪِ ﺛُﻢَّ ﺗُﻮَﻓَّﻰ ﻛُﻞُّ ﻧَﻔْﺲٍ ﻣَﺎ ﻛَﺴَﺒَﺖْ ﻭَﻫُﻢْ ﻟَﺎ
ﻳُﻈْﻠَﻤُﻮﻥَ ) সূরা বাক্বারার ২৮১ নং আয়াত।
(ইবনু আবী হাতেম সাঈদ বিন জুবাইর
(রাঃ) থেকে বর্ণনা করেন যে, এই
আয়াত নাযিল হওয়ার পর
নবী (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম)
নয় দিন জীবিত ছিলেন।- আল ইতক্বান
ফি উলূমিল কুরআন)
২০) প্রশ্নঃ পবিত্র কুরআনের সর্বপ্রথম
কোন সূরাটি পূর্ণাঙ্গরূপে নাযিল হয়?
⭕উত্তরঃ সূরা ফাতিহা।


২১) প্রশ্নঃ পবিত্র কুরআন প্রথম
যুগে কিভাবে সংরক্ষিত ছিল?
উত্তরঃ সাহাবায়ে কেরামের
স্মৃতিতে, লিখিত অবস্থায় চামড়ায়,
হাড়ে, পাতায় এবং পাথরে।
২২) প্রশ্নঃ সর্বপ্রথম কে কুরআন
একত্রিত করেন?
⭕উত্তরঃ আবু বকর (রাঃ)।
২৩) প্রশ্নঃ কোন সাহাবীকে কুরআন
একত্রিত করার দায়িত্ব
দেয়া হয়েছিল?
⭕উত্তরঃ যায়েদ বিন সাবেত (রাঃ) কে।
২৪) প্রশ্নঃ কার পরামর্শে এই কুরআন
একত্রিত করণের কাজ শুরু হয়?
⭕উত্তরঃ ওমর বিন খাত্তাব (রাঃ)
২৫) প্রশ্নঃ রাসূলুল্লাহ্ (সাঃ) এর
ওহী লেখক কে কে ছিলেন?
উত্তরঃ আলী বিন আবী তালেব,
মুআবিয়া বিন আবী সুফিয়ান, যায়েদ
বিন ছাবেত ও উবাই বিন কা’ব প্রমুখ
(রাঃ)।
২৬) প্রশ্নঃ কোন যুগে কার নির্দেশে
কুরআনের অক্ষরে নকতা দেয়া হয়?
⭕উত্তরঃ উমাইয়া খলীফা আবদুল
মালিকের যুগে হাজ্জাজ বিন
ইউসূফের নির্দেশে একাজ হয়।
২৭) প্রশ্নঃ কুরআনে নকতা দেয়ার
কাজটি কে করেন?
⭕উত্তরঃ নসর বিন আছেম বিন
ই’য়ামার (রহঃ)।
২৮) প্রশ্নঃ কুরআনে কে হরকত (যের যবর
পেশ ইত্যাদি) সংযোজন করেন?
⭕উত্তরঃ খলীল বিন আহমাদ আল
ফারাহীদী (রহঃ)।
২৯) প্রশ্নঃ পবিত্র কুরআনে কতবার
‘দুনিয়া’ শব্দটি এসেছে?
⭕উত্তরঃ ১১৫ বার।
৩০) প্রশ্নঃ পবিত্র কুরআনে কতবার
‘আখেরাত’ শব্দটি এসেছে?
⭕উত্তরঃ ১১৫ বার।


৩১) প্রশ্নঃ পবিত্র কুরআনে কতটি
অক্ষর রয়েছে?
⭕উত্তরঃ ৩২৩৬৭১টি।
৩২)প্রশ্নঃ পবিত্র কুরআনে কতটি
শব্দ আছে?
⭕উত্তরঃ ৭৭৪৩৯টি।
৩৩) প্রশ্নঃ পবিত্র কুরআনে কতটি
আয়াত আছে?
⭕উত্তরঃ ১) আয়েশা(রাঃ) —– ৬,৬৬৬ টি।
২) উসমান(রাঃ) —– ৬,২৫০ টি।
৩) আলী(রাঃ) ——- ৬,২৩৬ টি।
৪) ইবনে মাসুদ(রাঃ)– ৬,২১৮ টি।
৫) মক্বার গনণা ——- ৬,২১২ টি।
৬) ইরাকের গনণা —- ৬,২১৪ টি।
৭) বসরার গনণা —– ৬,২২৬ টি।
৩৪) প্রশ্নঃ কোন সূরার শেষ দু’টি আয়াত
কোন মানুষ রাত্রে পাঠ করলে
তার জন্য যথেষ্ট হবে?
⭕উত্তরঃ সূরা বাক্বারার শেষের আয়াত
দু’টি। (285 ও 286 নং আয়ত)
৩৫) প্রশ্নঃ পবিত্র কুরআনে কতটি সিজদা আছে এবং কোন কোন সূরায়?
⭕উত্তরঃ১৪টি। আ’রাফ (২০৬নং আয়াত),
রা’দ (১৫নং আয়াত), নাহাল(৪৯নং আয়াত),
ইসরা (১০৭নং আয়াত),মারইয়াম (৫৮নং আয়াত), হাজ্জ (১৮ ও৭৭ নং আয়াত), ফুরক্বান (৬০নং আয়াত),নামাল (২৫নং আয়াত),সজিদা (১৫নং আয়াত), সোয়াদ(২৪নং আয়াত), হা-মীম আস সাজদাহ(৩৭নং আয়াত), নাজম (৬২নং আয়াত), ইনশক্বিাক (২১নং আয়াত), আলাক(১৯নং আয়াত)।
৩৬) প্রশ্নঃ কোন সূরায় দু’টি সিজদা রয়েছে?
⭕উত্তরঃ সূরা হজ্জ। (18 ও ৭৭ নং আয়াত)
৩৭) প্রশ্নঃ পবিত্র কুরআনে কতবার
‘রহমান’ শব্দের উল্লেখ হয়েছে?
⭕উত্তরঃ ৫৭ বার।
৩৮)প্রশ্নঃ পবিত্র কুরআনে কতবার
‘জান্নাত’ শব্দ এসেছে?
⭕উত্তরঃ ১৩৯ বার। (একবচন, দ্বিবচন ও
বহুবচন শব্দে)
৩৯) প্রশ্নঃ পবিত্র কুরআনে কতবার
‘জাহান্নাম’ শব্দ এসেছে?
⭕উত্তরঃ ৭৭বার।
৪০) প্রশ্নঃ পবিত্র কুরআনে কতবার
‘আল হামদু লিল্লাহি রাব্বিল আলামীন’
বাক্যটি এসেছে?
⭕উত্তরঃ ৬বার।


৪১) প্রশ্নঃ পবিত্র কুরআনের কোন্
আয়াতে আরবী ২৯টি অক্ষরই রয়েছে?
⭕উত্তরঃ সূরা ফাতিহা এর ২৯ নং আয়াতে।
৪২) প্রশ্নঃ সূরা ফাতিহায়,
‘মাগযূবে আলাইহিম’ বলতে কাদেরকে
বোঝানো হয়েছে এবং ‘যাল্লীন’ বলতে
কাদেরকে বোঝানো হয়েছে?
⭕উত্তরঃ ‘মাগযূবে আলাইহিম’
বলতে ইহুদীদেরকে এবং ‘যাল্লীন’
বলতে খৃষ্টানদেরকে বোঝানো
হয়েছে।
⭕৪৩) প্রশ্নঃ পবিত্র কুরআনের কোন সূরায়
‘মীম’ অক্ষরটি নেই?
⭕উত্তরঃ সূরা কাওসার।
৪৪) প্রশ্নঃ পবিত্র কুরআনের কোন সূরায় ﻙ ‘কাফ’ অক্ষরটি নেই?
⭕উত্তরঃ সূরা কুরাইশ, ফালাক ও আসর।
৪৫) প্রশ্নঃ পবিত্র কুরআনের কোন সূরায়
দুবার বিসমিল্লাহির রহমানির রাহীম রয়েছে?
⭕উত্তরঃ সূরা নামল। (২৭ নং সূরা)
৪৬) প্রশ্নঃ কুরআনের কোন সূরার
প্রথমে বিসমিল্লাহ নেই?
⭕উত্তরঃ সূরা তাওবা। (৯নং সূরা)
৪৭) প্রশ্নঃ পবিত্র কুরআনে মোট কতবার
‘বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহীম রয়েছে?
⭕উত্তরঃ ১১৪ বার।
৪৮) প্রশ্নঃ কোন্ সূরা সম্পর্কে ইমাম
শাফেঈ বলেন, “মানুষের জন্য এ
সূরাটি ব্যতীত অন্য সূরা নাযিল
না হলেও যথেষ্ট ছিল”?
⭕উত্তরঃ সূরা আসর।
৪৯) প্রশ্নঃ পবিত্র কুরআনে কতজন নবীর
নাম উল্লেখ করা হয়েছে?
⭕উত্তরঃ ২৫ জন।
৫০)প্রশ্নঃ মাক্কী সূরা ও
মাদানী সূরা বলতে কি বুঝায়?
⭕উত্তরঃ মাক্কীঃ মদীনায় হিজরতের
পূর্বে যা নাযিল হয়েছে।
মাদানীঃ মদীনায় হিজরতের পর
যা নাযিল হয়েছে।

এ জাতীয় আরও সংবাদ

Back to top button