উদ্বোধন জটিলতায় বরিশালে সড়কের কাজ বন্ধ

পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী কর্নেল (অব.) জাহিদ ফারুক শামীমকে দিয়ে উদ্বোধন না করানোয় বরিশালে একটি সড়কের সংস্কারকাজ বন্ধ রাখা হয়েছে। গত ২১ ডিসেম্বর সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান রিন্টু ওই কাজের উদ্বোধন করেছিলেন। রিন্টু বরিশাল সিটি করপোরেশনের (বিসিসি) মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহর অনুসারী।

কাজের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা বলছেন, প্রতিমন্ত্রী উদ্বোধন করলে সড়কের কাজ শুরু হবে। প্রতিমন্ত্রীর এপিএস শফিকুল ইসলাম জানান, আগামী শনিবার প্রতিমন্ত্রীর কাজের উদ্বোধন করার কথা ছিল। তবে তিনি এখন ব্যস্ত আছেন। পরে নতুন তারিখ ঠিক করা হবে।

মেয়র সাদিক আব্দুল্লাহর সঙ্গে প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুকের দ্বন্দ্ব এখন প্রকাশ্য। এই দ্বন্দ্বের কারণে বিসিসির ৯ কাউন্সিলরের সম্মানী কেটে রাখার অভিযোগ উঠেছে। সাত কাউন্সিলর এ নিয়ে মেয়রকে আইনি নোটিশ দেন। কাউন্সিলররা প্রতিমন্ত্রীর লোক বলে পরিচিত।

উন্নয়নকাজের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা জানান, গত ২১ ডিসেম্বর সদর উপজেলা চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান চরবাড়িয়া ইউনিয়নের তালতলী বন্দর থেকে লামচরী গনি মেম্বরের হাট পর্যন্ত সাড়ে তিন কিলোমিটার সড়কের সংস্কারকাজের উদ্বোধন করেন। এর তিন দিনের মাথায় কাজটি বন্ধ করে দেওয়া হয়। সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের অভিযোগ, প্রতিমন্ত্রীর নির্দেশে কাজ বন্ধ হয়েছে। এখন কাজ শুরু করতে এরই মধ্যে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ও স্থানীয় সরকার বিভাগ (এলজিইডি) উদ্যোগ নিয়েছে।

জাহিদ ফারুক বরিশাল সদর আসনের সরকারদলীয় এমপি এবং জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি। মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।

এ বিষয়ে জানতে পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক শামীমের মুঠোফোনে একাধিকবার ফোন দিলেও তিনি ধরেননি। তবে প্রতিমন্ত্রীর এপিএস শফিকুল ইসলাম মুঠোফোনে বিডি নিউজ ওয়ার্ল্ডকে বলেন, আগামী শনিবার ওই সড়ক সংস্কারকাজের উদ্বোধন করার কথা ছিল। প্রতিমন্ত্রী মহোদয় ব্যস্ত থাকায় নতুন তারিখ ঠিক করা হবে।

স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলীর কার্যালয়ের তথ্য মতে, সড়কটির সংস্কারকাজের জন্য ব্যয় ধরা হয়েছে প্রায় এক কোটি ৫০ লাখ টাকা। কাজটি পেয়েছে মেসার্স এসএইচ এন্টারপ্রাইজ নামের একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান।

ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের মালিক মো. সবির হোসেন বিডি নিউজ ওয়ার্ল্ডকে বলেন, ‘উদ্বোধনের পর টানা তিন দিন কাজ হয়। তবে এখন পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক এমপির উদ্বোধনের অপেক্ষায় কাজটি বন্ধ রাখা হয়েছে। শনিবার তিনি কাজটি উদ্বোধন করবেন বলে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী জানিয়েছেন। আমরা এর জন্য সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছি।’

উপজেলা প্রকৌশলী মাইনুল ইসলাম বিডি নিউজ ওয়ার্ল্ডকে বলেন, ‘চরবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মাহতাব সুরুজ এবং আমি উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ছিলাম। তবে এখন পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক যেহেতু এই আসনের সংসদ সদস্য, তাই তিনি কাজ উদ্বোধন করার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন। এখন তাঁর উদ্বোধনের অপেক্ষায় আছি।’

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলা চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান প্রয়াত মেয়র শওকত হোসেন হিরনের হাত ধরে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে আসেন। হিরনের মৃত্যুর পর সাইদুর রহমান রাজনৈতিকভাবে অনেকটা কোণঠাসা হয়ে পড়েন। শেষমেশ তাঁর নিকটাত্মীয় এক মন্ত্রীর মাধ্যমে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সংসদ সদস্য আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহর অনুসারী হয়ে যান। গেল সিটি নির্বাচনে হাসানাত আব্দুল্লাহর ছেলে মেয়র প্রার্থী সাদিক আব্দুল্লাহর ভোট করেন তিনি। ইউপি চেয়ারম্যান মাহতাব হোসেনও ছাত্ররাজনীতি করতেন। তখন থেকেই জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহর অনুসারী ছিলেন। সিটি নির্বাচনে সাদিকের পক্ষে তিনিও কাজ করেন। ২১ ডিসেম্বর সড়ক সংস্কারকাজের উদ্বোধনের সময় উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মাহাবুবুর রহমান মধু উপস্থিত ছিলেন না। মাহাবুবুর প্রতিমন্ত্রীর ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত।

ইউপি চেয়ারম্যান মো. মাহাতাব হোসেন বিডি নিউজ ওয়ার্ল্ডকে বলেন, কী কারণে কাজ বন্ধ রাখা হয়েছে, সে বিষয়ে ঠিকাদার কিছু জানাননি। তবে এমন একটি গুরুত্বপূর্ণ সড়কের কাজ নিয়ে কোনোভাবেই রাজনীতি করা ঠিক নয়।

স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী শরীফ জামাল হোসেন বিডি নিউজ ওয়ার্ল্ডকে বলেন, ‘প্রতিমন্ত্রী কবে নাগাদ উদ্বোধন করবেন, সে বিষয়ে এখন পর্যন্ত কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। আমরা তাঁর নির্দেশনা অনুযায়ী সব ধরনের আয়োজন রাখব।’

উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মাহাবুবুর রহমান বিডি নিউজ ওয়ার্ল্ডকে বলেন, ‘তালতলী থেকে লামছড়ি পর্যন্ত সাড়ে তিন কিলোমিটার সড়কে ৭৭টি গর্ত ছিল। আমি রাস্তা সংস্কারের জন্য প্রতিমন্ত্রীর মাধ্যমে ডিও দিয়েছিলাম। কিন্তু রাস্তা সংস্কারের কাজ উদ্বোধনের সময় আমি তো দূরের কথা, প্রতিমন্ত্রী পর্যন্ত অবগত ছিলেন না। তার পরও কাজটি দ্রুত এগিয়ে যাক, সেই প্রত্যাশা করি।’

উপজেলা চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান বিডি নিউজ ওয়ার্ল্ডকে বলেন, কাজ শুরু হওয়ার পর প্রতিমন্ত্রী তা বন্ধ করে দিয়েছেন। এ ঘটনায় সরকারের বদনাম হয়েছে।

এ জাতীয় আরও সংবাদ

Back to top button