না.গঞ্জের সোনারগাঁয়ের পিরোজপুর ইউনিয়নে অপ্রতিদ্বন্দী বর্তমান চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মাসুম

সারাদেশে বেশ কিছু ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা হয়েছে। এরমধ্যে সোনারগাঁয়ের ৮ টি ইউপি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২৮ নভেম্বর। যদিও বেশ আগে থেকেই নির্বাচনী জনসংযোগ শুরু করেছেন চেয়ারম্যান পদ প্রত্যাশী অনেকে।

সোনারগাঁ এর পিরোজপুর ইউনিয়নেও বেশ কয়েকজন প্রার্থীর নাম শোনা যাচ্ছে। তবে রাজনীতি সচেতন অনেকেই মনে করছেন, যে কয়জনের নাম আলোচনায় রয়েছে তাদের মধ্যে এবারো অপ্রতিদ্বন্দী বর্তমান চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মাসুম।

বিশেষ করে করোনা মহামারীতে তার ত্রাণ সহায়তা ও নির্বাচনী এলাকার প্রত্যেকটি গ্রামে মহল্লায় ব্যক্তিগত ও সরকারি অর্থ সহযোগিতা অব্যাহত রেখেছেন।

এছাড়া সুষম উন্নয়ন করে রাস্তাঘাট নির্মান করে এলাকার চিত্রই বদলে দিয়েছেন। এসব কারনে জনসাধারনের মাঝে তার রয়েছে ব্যাপক জনপ্রিয়তা।

অন্যদিকে রাজনৈতিক ভাবেও তিনি বেশ এগিয়ে। ছাত্রলীগ থেকে যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হয়েছেন। যুবলীগ থেকে বর্তমানে উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক হয়েছেন। পাশাপাশি আছেন জেলা কমিটির সদস্য হিসেবে। তাই দলীয় হাইকমান্ডের কাছেও তিনি সমাদৃত। তাই ধারনা করা হচ্ছে রাজনৈতিক ভাবেও তিনি দলীয় প্রতীক পাবেন অনেকটা নিশ্চিত।

স্থানীয় ভোটারদের সাথে কথা বলে জানাযায়, এলাকায় সরকারের উন্নয়নের ধারাবাহিকতার পাশাপাশি নিজ অর্থায়নে বহু কাজ করে নজির সৃষ্টি করেছেন চেয়ারম্যান মাসুম। যা এর আগে কোন চেয়ারম্যান করেননি।

পিরোজপুর ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের মেম্বার পদপ্রার্থী সাংবাদিক আনোয়ার হোসেন বলেন, মাসুম চেয়ারম্যানের মতো মানবিক ও দানবীর চেয়ারম্যান সারা বাংলাদেশে আর একটিও নেই।

পিরোজপুর ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের মেম্বার পদপ্রার্থী মাকারুল বলেন, এই ইউনিয়নে উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি এমন অভিযোগ নেই করো। বাস্তবায়িত হয়েছে দাবি করা প্রতিটি রাস্তা, সেঁতু, ধর্মীয় ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন কাজ। সরকারি বরাদ্দ না থাকলে নিজের পকেটের টাকায় করে দেয় চেয়ারম্যান মাসুম।

এছাড়াও গত ২৮ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে আয়োজিত এক জনসভায় সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামীলীগের আহবায়ক কমিটির প্রায় সকল সদস্যরাই সোনারগাঁ উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মাসুদুর রহমান মাসুমকে পূর্নরায় নির্বাচিত করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন এবং তাকে নৌকার একক প্রার্থী হিসেবে ঘোষনা করেন।

সাবেক এমপি ও উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহবায়ক কায়সার হাসনাত বলেন, সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহবায়ক ও এই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাসুমকে আগামী নির্বাচনে চেয়ারম্যান হিসেবে আমরা দেখতে চাই। তাই আজকে সকলের উদ্দেশ্যে বলতে চাই, তফসিল হওয়ার আগে যেহেতু কোন প্রার্থী নেই সেহেতু তফসিল ঘোষনার পর আর কোন প্রার্থী থাকবে বলে আমি মনে করি না। আর হুট করে কেউ আসলে জনগণ তাকে ভোটের মাধ্যমে প্রত্যাখ্যান করবে।

এ জাতীয় আরও সংবাদ

Back to top button