বগুড়ার শেরপুরের শাহবন্দেগী ইউনিয়নের ফুলতলা টিকা কেন্দ্রে বিএনপি নেতার সাথে আ.লীগের চেয়ারম্যানের হাতাহাতি

বগুড়ার শেরপুরে করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন দেয়ার জন্য লাইনে দাঁড়ানোকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের ইউপি চেয়ারম্যান ও বিএনপি নেতার মাঝে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে।

গত (২৮ সেপ্টেম্বর) মঙ্গলবার বেলা ০৩:১০ ঘটিকার সময় শেরপুর উপজেলার ১০ নং শাহবন্দেগী ইউনিয়নের ফুলতলা দাখিল মাদ্রাসা কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে।

শেরপুর উপজেলার ১০নং শাহবন্দেগী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আল আমিন আকন্দ জানান,আমি কেন্দ্র পরিদর্শন করতে গিয়ে দেখি টিকা নিতে অসংখ্য মানুষের ভীড়। এর মধ্যে বিএনপি-জামাতের কিছু লোক লাইন ছাড়াই লোক জোর করে লোক ঢুকাচ্ছে। এর প্রতিবাদ করতে গেলে আমার উপর শাহবন্দেগী ইউনিয়ন বিএনপির সহ-সভাপতি শাহজাহান আলী ডাক্তার হামলা করে।
তাৎক্ষণিক উপস্থিত লোকজন তাকে কেন্দ্র থেকে বিতাড়িত করে।

এ ব্যাপারে শাহবন্দেগী ইউনিয়ন বিএনপির নবনির্বাচিত সিনিয়র সহ-সভাপতি শাহজাহান আলী (ডাক্তার) জানান, আমি টিকার লাইনের পার্শ্বে বারান্দায় দাঁড়িয়ে ছিলাম। এ সময় ইউপি চেয়ারম্যান আল আমিন আমাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে করতে এসে ঘুষি মারে। আমিও এসময় তাকে ঘুষি মেরেছি। পরে উপস্থিতরা বাধা দিলে কেন্দ্র ত্যাগ করে চলে এসেছি।

এ ব্যাপারে ফুলতলা দাখিল মাদ্রাসার সহকারি সুপার ও নিকাহ রেজিস্ট্রার মোঃ আবুল কালাম আজাদ জানান, চেয়ারম্যান সাহেব ও শাজাহান ডাক্তারের মাঝে উত্তেজনা দেখা দিলে স্থানীয় ইউপি সদস্য ও পুলিশ সদস্যরা তাদের থামিয়েছে।

এব্যপারে শেরপুর থানার এএসআই মোঃ আবু বক্কার জানান, ফুলতলা দাখিল মাদ্রাসায় টিকা দান কেন্দ্রে ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ আল আমিন ও বিএনপি নেতা শাহজাহানের মধ্যে ধস্তাধস্তি শুরু হলে আমরা তাদের সরিয়ে দিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেছি।

শেরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর করোনা ফোকাল পার্সন ডা. আবু হাসান জানান, ফুলতলা দাখিল মাদ্রাসা কেন্দ্রে অপ্রীতিকর কোন ঘটনার খবর আমি পাইনি।

এ জাতীয় আরও সংবাদ

Back to top button