বেতাগীতে তৈরি হচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া মডেল মসজিদ।

বরগুনার বেতাগী উপজেলার দেড়লাখ মানুষের আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দু এখন দ্বিতল অত্যাধুনিক ও দৃষ্টিনন্দন বেতাগী মডেল মসজিদ। দৃষ্টিনন্দন এ মসজিদের নির্মাণ শেষে নামাজের জন্য কবে নাগাদ দ্বার উন্মোচিত হবে অধীর আগ্রহে তাকিয়ে আছেন স্থানীয় মুসলিমরা।

বেতাগী, বামনা,পাথর ঘাটা গণ মানুষের আস্থা ভাজন নেতা, বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি সংসদ সদস্য শওকত হাচানুর রহমান রিমন ও বেতাগী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পৌর মেয়র আলহাজ্ব এ বি এম গোলাম কবির এর প্রচেষ্টার ফসল এই মডেল মসজিদ। এই মডেল মসজিদের কাজে যেন সঠিক ও মান সম্মত হয় সে ব্যাপারে বেতাগী পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব এ বি এম গোলাম কবির বদ্ধ পরিকর।

বেতাগী পৌরসভার প্রানকেন্দ্রে উপজেলা পরিষদ অফিস সংলগ্ন এলাকায় এগিয়ে চলছে নান্দনিক এই মসজিদের নির্মাণ কাজ।
জানা যায়, ১২ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত অত্যাধুনিক এই মডেল মসজিদে থাকছে এক সাথে ৮ হাজার মানুষের নামাজ পড়ার ব্যবস্থার পাশাপাশি ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র।
নারী ও পুরুষের জন্য পৃথক অজুর স্থান, লাইব্রেরি ও গবেষণা কেন্দ্র। আরও থাকছে শিশু শিক্ষা, হজযাত্রীদের নিবন্ধনকেন্দ্র ও ইমামদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা।

এছাড়াও মসজিদের আন্ডারগ্রাউন্ডে রয়েছে বিশাল পার্কিং ব্যবস্থা।ধর্মানুরাগীদের পাশাপাশি এই মসজিদ নির্মাণে আনন্দিত ও উৎসাহিত সর্বস্তরের মানুষ।
এমনই একাধিক ব্যক্তি বলেন, এই রকম একটি মসজিদ এখানে নির্মিত হবে এটা ভাবাও যায়নি। তবে অত্যাধুনিক ও দৃষ্টিনন্দন এত সুন্দর মসজিদ তৈরির আনন্দে বুকটা ভরে আসছে।
ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের স্বত্ত্বাধিকারী ৩নং হোসনা বাদ ইউপি চেয়ারম্যান ও বেতাগী উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. খলিলুর রহমান খান জানান, ২০২০ সালে উপজেলা পরিষদের জমিতে এ মসজিদটির নির্মাণ কাজ শুরু হয়ে কাজটি অধ্যাবধি চলমান রয়েছে।
কাজটি প্রায় শেষের দিকে হলেও প্রয়োজনীয় বরাদ্দের অভাবে দ্রুত সম্পন্ন হতে কিছুটা হলেও বিলম্বিত হচ্ছে। তবে অর্থ বরাদ্দ সাপেক্ষে অচিরেই শেষ করতে পারব বলে আশা করছি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো.সুহৃদ সালেহীন জানান,’ সরকারি অর্থায়নে এ মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্রটি নির্মাণ করা হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রীর এটা একটি অনন্য ও সাহসী উদ্যোগ। যা যুগ যুগ ধরে মানুষের মাঝে দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে।

এ জাতীয় আরও সংবাদ

Back to top button