ভোলায় নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ইলিশ শিকার কারার কারনে , ২ জেলে আটক করল।

ভোলা জেলার সদর উপজেলা ও চরফ্যাশন উপজেলায় সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মা ইলিশ শিকারের দায়ে ২২ জেলেকে আটক করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার রাত থেকে শুক্রবার দুপুর ১২ টা পর্যন্ত মেঘনা ও তেতুঁলীয়া নদীর বিভিন্ন পয়েন্টে মৎস্য বিভাগ ও স্থানীয় প্রশাসনের পৃথক অভিযানে তাদের আটক করা হয়। এর মধ্যে চরফ্যাশনে ২০ জেলে ও ভোলা সদর উপজেলার ২ জেলে রয়েছেন।

এসময় মোট ১২ হাজার মিটার অবৈধ কারেন্ট জাল, ৩০ কেজি ইলিশ মাছ ও দুইটি ইঞ্জিন চালিত ট্রলার জব্দ করা হয়।

শুক্রবার দুপুরে সদর উপজেলায় আটক ২ জেলেকে সহকারী কমিশনার (ভূমি) আলী সুজার ভ্রাম্যমাণ আদালত ৫ হাজার টাকা করে মোট ১০ হাজার টাকা অর্থদন্ড প্রদান করে। এছাড়া চরফ্যাশন উপজেলায় আটককৃতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

জেলা মৎস্য কর্মকর্তা এস, এম, আজাহারুল ইসলাম জানান, গত রাত থেকে শুক্রবার বেলা ১২ টা পর্যন্ত চরফ্যাশন উপজেলার তেতুঁলীয়া নদীতে অভিযান চালিয়ে ৯ জেলে ও মেঘনা থেকে ১১ জেলেকে আটক করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন। এসময় ১০ হাজার মিটার অবৈধ কারেন্ট জাল, ৩০ কেজি ইলিশ মাছ ও দুইটি ইঞ্জিন চালিত ট্রলার জব্দ করা হয়। অবৈধ কারেন্ট জাল পুড়িয়ে বিনষ্ট ও মাছ অসহায়দের মাঝে বিতরণ করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, সদর উপজেলার তেতুঁলীয়া নদী থেকে আটক দুজনকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। অবৈধ কারেন্ট জাল জব্দ করা হয়েছে ২ হাজার মিটার। এছাড়া মনপুরা উপজেলার মেঘনা নদী থেকে প্রায় ১ লক্ষ মিটার অবৈধ কারেন্ট জাল উদ্ধার করা হয়েছে। যা ইতোমধ্যে পুড়িয়ে ফেলা হয়েছে। আইন ভঙ্গকারী কাউকে ছাড় দেয়া হচ্ছেনা বলে জানান তিনি।

এ জাতীয় আরও সংবাদ

Back to top button