সুস্থ থাকতে এবং ত্বক ভালো রাখতে যেসব খাবার অপরিহার্য।

ত্বক ভালো রাখতে বেশি করে ভিটামিন “সি” জাতীয় ফল ও শাক- সব্জি খান।
ভিটামিন সি’র চাহিদা মেটাবে যেসব খাবার।

অনেকেরই সারা বছর সর্দি-কাশি লেগে থাকে। তার উপর করোনার ভয় তো আছেই। এ কারণে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে চিকিৎসকরা বেশি করে ভিটামিন সি যুক্ত খাবার খেতে বলছেন।

লেবুতে পর্যাপ্ত পরিমাণে ভিামিন সি পাওয়া যায়। কিন্তু রোজ লেবু খেলে অনেকের অ্যাসিডিটির সমস্যা হয়। সেক্ষেত্রে দৈনন্দিন খাদ্যতালিকায়ি কয়েকটি ফল ও সবজি যুক্ত করতে পারেন। এগুলো শরীরে প্রয়োজনীয় ভিটামিন সি-র জোগান দিতে পারে। যেমন—

পাকা পেঁপে: একটি ছোট পাকা পেঁপেতে ৯৫ দশমিক ৬ মিলিগ্রাম ভিটামিন সি থাকে। যদি হাড়ের ব্যথা কিংবা সর্দি-কাশির সমস্যায় ভোগেন, তাহলে সকালের নাস্তায় খানিকটা পাকা পেঁপে রাখতে পারেন।

পেয়ারা: একটি বড় পেয়ারায় ৩৭৭ মিলিগ্রাম ভিটামিন সি পাওয়া যায়। ভিটামিন সি’র ঘাটতি পূরণে প্রতিদিন এই ফলটি খেতে পারেন।

ব্রকোলি: এক কাপ ভর্তি ব্রকোলি কুচিতে ৮১ দশমিক ২ মিলিগ্রাম ভিটামিন সি পাওয়া যায়। তবে বেশি ঠান্ডা বা অতিরিক্ত গরমে রাখলে তার পরিমাণ কিছুটা কমে যায়। অর্থাৎ, কাঁচা ব্রকোলিতে যতটা ভিটামিন থাকে, রান্নার পর ততটা থাকে না। তবুও নিয়মিত ব্রকোলি খেলে অনেক খাদ্যের তুলনায় বেশি ভিটামিন সি শরীরে প্রবেশ করে।

শাক: যে কোনও সবুজ শাকেও যথেষ্ট পরিমাণ ভিটামিন সি থাকে। এ ছাড়াও, নিয়মিত শাক খেলে অনেকটা আয়রন প্রবেশ করে শরীরে।

আলু: একটি বড় আলুতে থাকে ৭২ দশমিক ৭ মিলিগ্রাম ভিটামিন সি পাওয়া যায়। ফলে নিয়মিত আলু খেলেও প্রতিরোধ শক্তি বাড়বে।

এ জাতীয় আরও সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button