হারলো চেন্নাই , শীর্ষে উঠল দিল্লি

আইপিএলের পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষ দুই দল চেন্নাই সুপার কিংস ও দিল্লি ক্যাপিটালস। সোমবার (৪ অক্টোবর রাতে তারা মুখোমুখি হয়েছিল শীর্ষস্থান দখলের লড়াইয়ে। এই লড়াইয়ে চেন্নাইকে ৩ উইকেটে হারিয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে উঠেছে পন্ত বাহিনী।

শেষ ওভারে জয়ের জন্য ৬ রান দরকার ছিল চেন্নাই সুপার কিংসের। ডোয়াইন ব্রাভোর হাতে বল তুলে দেন চেন্নাই অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। ব্যাটিংয়ে আরেক ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান শিমরন হেটমায়ার।প্রথম দুটি ডেলিভারি থেকে ওয়াইডসহ মোট ৪ রান তুলে নেন হেটমায়ার। ম্যাচে এরপর আর কিছুই থাকার কথা নয়। কিন্তু কে জানত নাটক জমে উঠবে! ব্রাভোর পরের বলে দিল্লির অক্ষর প্যাটেল কোনো রান নিতে পারেননি। তার পরের বলেই আবার আউটও হলেন!

চেন্নাইয়ের এখান থেকে ঘুরে দাঁড়ানোর স্বপ্ন দেখেছেন অনেকেই। কিন্তু তাদের সে স্বপ্ন মাটি করে দেন দিল্লির প্রোটিয়া পেসার কাগিসো রাবাদা। ব্যাটিংয়ে নেমে মুখোমুখি হওয়া প্রথম বলেই (শেষ ওভারের চতুর্থ বল) চার মেরে দিল্লি ক্যাপিটালসকে ২ বল হাতে রেখে ৩ উইকেটের জয় এনে দেন রাবাদা।

এই জয়ের ফলে দিল্লি ক্যাপিটালসের পয়েন্ট দাঁড়াল ১৩ ম্যাচে ২০। চেন্নাইর ১৩ ম্যাচে ১৮। ধোনির দল যদি শেষ ম্যাচে হেরে যায় এবং বিরাট কোহলির রয়্যাল চালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু যদি দুটি ম্যাচেই জয়লাভ করে তাহলে পয়েন্ট টেবিলের তিনে নেমে যেতে হবে চেন্নাই সুপার কিংসকে। তবে চেন্নাই যদি শেষ ম্যাচ জিতে যায় তাহলে প্রথম কোয়ালিফায়ার খেলবে দিল্লি ও চেন্নাই।

টস হেরে ব্যাট করতে নামা চেন্নাইর শুরুটা ভালো হয়নি। ৬৪ রান তুলতেই তারা হারিয়ে বসে ৪ উইকেট। চেন্নাইর রান ১৩৬ পর্যন্ত নিয়ে যাওয়ার পেছনে সবচেয়ে বড় ভূমিকা রাখেন আম্বাতি রাইডু। চেন্নাইয়ের ইনিংসে ৪৩ বলে সর্বোচ্চ ৫৫ রান করে অপরাজিত ছিলেন আম্বাতি রাইডু। ৫৯ রানের প্রথম তিন উইকেট পতনের পর নামা রাইডুর ইনিংসটি সাজানো ৫ চার ও ২ ছক্কায়। তিনি ছাড়া আর কেউ সেভাবে রান পাননি।১৫টি রান আসে অতিরিক্ত খাত থেকে।

কোনো চার–ছক্কা ছাড়াই ২৭ বলে ১৮ রানের মন্থর ইনিংস খেলেন চেন্নাই অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। ১০ রান করে আউট হন চেন্নাই ওপেনার ফাফ ডু প্লেসি। দিল্লির হয়ে ১৮ রানে ২ উইকেট নেন স্পিনার অক্ষর প্যাটেল।

১৩৭ রান তাড়া করতে নেমে লড়াই করতে হয় দিল্লিকেও। তারপরও শিখর ধাওয়ান (৩৯), শিমরন হেটমায়ার (২৮*), পৃথ্বি শ (১৮), রিপাল প্যাটেল (১৮) ও ঋষভ পন্ত (১৫) ব্যাটে ভর করে শেষ মুহূর্তে জয় পায়। 

বল হাতে চেন্নাইর শার্দুল ঠাকুর ৪ ওভারে ১৮ রান দিয়ে ২টি ও রীবন্দ্র জাদেজা ৪ ওভারে ২৮ রান দিয়ে ২টি উইকেট নেন।

ম্যাচসেরা নির্বাচিত হন অক্ষর প্যাটেল।

এ জাতীয় আরও সংবাদ

Back to top button