৭ বছরের মারিয়ার পুরো কুরআন মুখস্থ

ব্রিটেনের লোটন অঞ্চলের ৭ বছর বয়সী মেয়ে মারিয়া মহাগ্রন্থ আল-কুরআনের হাফেজা হয়েছে। যা বিস্ময়কর বটে। তাকে নিয়ে ব্রিটেনভিত্তিক ওয়েবসাইট ইলমফিড ডটকম একটি অনুপ্রেরণামূলক খবর প্রকাশ করেছে।
খবরে বলা হয়, মারিয়া যুদ্ধকবলিত সিরিয়ার জন্য অর্থ সংগ্রহের লক্ষ্যে একটি দাতব্য প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনায় সূরা ইয়াসিনের প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়। তখন তার বয়স ছিল মাত্র পাঁচ বছর।
সে ওই প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে দ্রুত সময়ে সূরা ইয়াসিন মুখস্থ করে ফেলে। তার মুখস্থ করার অসাধারণ দক্ষতার পরিপ্রেক্ষিতে তাকে স্থানীয় একটি মাদরাসায় ভর্তি করা হয়। সেখানে মাত্র দুই বছরে পুরো কুরআন মুখস্থ করতে সক্ষম হয় বিস্ময়কর শিশু মারিয়া।
মারিয়ার মায়েরও লক্ষ্য ছিল, মেযে যেন দ্রুত কুরআনের হেফজ করতে (মুখস্থ) সক্ষম হয়। তাই মারিয়াকে হাফেজা বানানোর জন্য তাকে গাইড করতে থাকেন মা।
আমাকে এবং মারিয়াকে এ জন্য অনেক পরিশ্রম ও ধৈর্যধারণ করতে হয়েছে। আমি মহান আল্লাহর দরবারে কৃতজ্ঞ যে, আমার আবেগ সফলতার মুখ দেখেছে।’
মাত্র দুই বছরে পুরো কুরআন হেফজ হলে তার হেফজ সমাপনী উপলক্ষে একটি অনুষ্ঠান করা হয়। আর তখন মারিয়া মাত্র ৭ বছরের শিশু।
মারিয়ার এ বিস্ময়কর স্মৃতিশক্তির খবর স্থানীয় বিভিন্ন গণমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে ব্রিটেনে মুসলিম পরিবারগুলোর মধ্যে এক ধরনের উদ্দীপনা দেখা দেয়। অনেকেই মারিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ করে পবিত্র কুরআনের বিশুদ্ধ তেলাওয়াত শুনে মুগ্ধ হতে ছুটে যাচ্ছেন মারিয়াদের বাসায়।

এ জাতীয় আরও সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button