অবশেষে তৃতীয় বিয়ের সংবাদ দিলেন নাইকা মাহি।

ওপার বাংলার নায়িকা মাহিয়া মাহি-র বিয়ের আঁচ পৌঁছেছিল এপারেও। অভিনেত্রী দ্বিতীয়বার বিয়ের পিঁড়িতে বসতে চলেছেন এই খবর আঁচ করে উত্তাল হয়েছিল নেটপাড়া। আসলে আভাসটা এসেছিল অভিনেত্রীর কাছ থেকেই। সোশ্যাল মিডিয়ায় মাহি লিখেছিলেন, ১৩ সেপ্টেম্বর তিনি সকলকে সারপ্রাইজ দেবেন। তারপর থেকেই সবাই আঁচ করে নেয় বিয়ে করবেন তিনি। কারণ বাংলাদেশের এক ব্যবসায়ী-রাজনীতিবিদের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক জানা ছিল অনেকেরই। আর ঠিক তাই এল।

চলতি বছরের মে মাসে প্রাক্তন স্বামী মাহমুদ পারভেজ অপুর সঙ্গে বিচ্ছেদের খবর প্রকাশের পর গত কয়েক মাসে একাধিকবার মাহির তৃতীয় বিয়ের খবর চাউর হয়। বলা হয়, গাজীপুরের তরুণ রাজনীতিক ও ব্যবসায়ী রাকিব সরকারকে বিয়ে করেছেন মাহি। সে খবর গুঞ্জন হলেও মাহির পোস্ট করা বিয়ের ছবিতে বর হিসেবে সেই রাকিবকেই দেখা গেছে।
তৃতীয় বিয়ে করেছেন চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি। পাত্র সাবেক ছাত্রলীগ নেতা রাকিব সরকার।

মাহি ১৩ সেপ্টেম্বর রাত সাড়ে ১২টায় কাবিননামায় স্বাক্ষর করার এক ছবি পোস্ট করে জানান, তিনি বিয়ে করেছেন ১৩ সেপ্টেম্বর।নায়িকা তার পোস্টে লেখেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ। আজ ১৩/০৯/২১ ইং ১২.০৫ মি. আমাদের বিবাহ সম্পন্ন হলো।’

আগের সব খবর গুজব ছিলো দাবি করে মাহি লেখেন, ‘এর আগের সব কথা আসলেই গুজব ছিলো। সবাই আমাদের জন্য দোয়া করবেন এটাই একমাত্র চাওয়া।’

চলতি বছরের জুন মাসে গুজব ছড়ায়- রাকিব সরকার নামের গাজীপুরের এক রাজনীতিক ও ব্যবসায়ীর সঙ্গে প্রেম করছেন নায়িকা মাহিয়া মাহি। এরপর থেকেই আলোচনায় এ নায়িকা। শোনা যায় গোপনে রাকিবকে বিয়েও করেছেন তিনি।ওই সময় পুরো গাজীপুরে এ সম্পর্ক ও বিয়ে নিয়ে আলোচনা হয়। মাহিকে রাকিবের গাড়ি উপহার দেওয়া এবং দুজন মিলে চাঁপাইনবাবগঞ্জ ঘুরতে যাওয়ারও কথা শোনা গিয়েছিল সে সময়।

যদিও এরআগে গণমাধ্যমকে রাকিবের সাথে সম্পর্ক নিয়ে মাহি একাধিকবার বলেছেন, ‘আমরা বন্ধু। শুধু বন্ধু নই, আমরা অনেক অনেক ভালো বন্ধু।’তবে বিয়ের ইঙ্গিত গেল সপ্তাহেই একটি ফেসবুক স্ট্যাটাসে দিয়েছিলেন মাহি। সেখানে তিনি জানিয়েছিলেন, ১৩ সেপ্টেম্বর সারপ্রাইজ দেবেন তিনি। সেই ইঙ্গিতই সত্য হলো। ১৩ তারিখ আসতেই ভক্ত অনুরাগীরা প্রিয় নায়িকার কাছ থেকে পেলেন মস্ত সারপ্রাইজ।

তবে রাকিবের বিষয় নিয়ে মুখে কুলুপ এঁটে ছিলেন মাহি। অবশেষে নীরবতা ভাঙলেন তিনি। নিজেই ঘোষণা দিয়ে জানালেন, সেই রাকিব সরকারকে বিয়ে করেছেন।

রাকিবেরও এটি দ্বিতীয় বিয়ে। আগের স্ত্রীর সঙ্গে রাকিবের ছাড়াছাড়ি হয়েছে কি না জানা যায়নি।

তবে জানা গেল সেই স্ত্রী তার সঙ্গে আপাতত থাকছেন না। গাজীপুরের বাসায় নতুন স্ত্রী মাহিকে তুলেছেন রাকিব। সেখানে তাদের সঙ্গে আছে রাকিবের প্রথম সংসারের দুই সন্তান সোয়াইব ও সাইয়ারা।এ বিষয়টি নিয়েই বেশ আলোচনা হচ্ছে। বিয়ে করেই দুই সন্তানের মা হলেন নায়িকা মাহি। জানা গেছে, তাদের সঙ্গে বেশ ভালোই সম্পর্ক তৈরি হয়েছে মাহির। বিয়ের আগেই সোয়াইব ও সাইয়ারার সঙ্গে পরিচয় মাহির। এরই মধ্যে দুই সন্তানের সঙ্গে মাহির আনন্দময় সময় কাটানোর ছবি ভাইরাল হয়েছে।

জানা গেছে, কামরুজ্জামান সরকার রাকিব বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সদস্য। এছাড়া তিনি গাড়ি ব্যবসায়ী, ‘সনি রাজ কার প্যালেস’ নামের একটি প্রতিষ্ঠান রয়েছে তার।

এর আগে মাহমুদ পারভেজ অপু নামে সিলেটের এক ব্যবসায়ীকে বিয়ে করেছিলেন মাহি।চলতি বছরের মে মাসে তাদের বিবাহ বিচ্ছেদ হয়।

তারও আগে ২০১৫ সালের ১৫ মে কাজী মো. সালাউদ্দিন ম্যারেজ রেজিস্ট্রারের মাধ্যমে শাওন নামে একজনকে বিয়ে করেন মাহি। ২০১৬ সালে অপুকে বিয়ের পর শাওনের সঙ্গে বিয়ের বিষয়টি আলোচনায় আসে। শাওনের সঙ্গে মাহির ছবিও ফাঁস হয়। তখন মাহি সাইবার ক্রাইমে মামলা করেন। তবে সেই মামলার প্রতিবেদনে শাওনের সঙ্গে মাহির বিয়ের প্রমাণ পাওয়া যায়।

এলএ/জেডএইচ/

এ জাতীয় আরও সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button